অপেক্ষা – মল্লিকা রায় দাশ

প্রাপ্তির সুখ ক্ষণিকের অতি,
অপ্রাপ্তিরা সীমাহীন যতি।
পেয়ে হারানোর জ্বালাতে জ্বলি,
বেদনার পাহাড় বুকে নিয়ে চলি।
তবুও কি জীবন থেমে থেকেছে,
লোক দেখানো হাসি হেসে চলেছে।
মুখ ও মনের অন্তরালে,
অলীক এক যুদ্ধ চলে।
জানিনা কদিন চলবে এমন করে,
কতোদিন এভাবে নিজেকে রাখবো ধরে।
স্মৃতিরা আজ নাড়া দিয়ে যায়,
পুরনো দিনকে ফিরে পেতে চায়।
উত্তাল সমুদ্রের ঢেউয়েতে ভেসে,
মন যেতে চায় উজান দেশে।
জানি সে দেশে আর যাবে না ফেরা,
সে দেশ যে এখন কাঁটা তারে ঘেরা।
তবু্ও নিভৃতে মন কেঁদে যায়,
কষ্টের তরী উজানে ভাসায়।
জীবনটা এক আজব খেলাঘর,
আজকে যে আপন কাল সে পর।
কষ্ট গুলি থাক শুধুই আমার,
স্মৃতি গুলি থাক শুধুই একার।
বেদনার বালুচরে আঁকবো ছবি,
সাক্ষী রেখে ভোরের রবি।
ভুল কি আমার একারই ছিলো,
এতো যে আমায় কষ্ট দিলো?
অস্ত রাগের ডাক শুনি আজ,
সাজতে হবে বিদায়ের সাজ।
মনকে আজ তাই স্বান্ত্বনা দেই,
সব চাওয়া এক জীবনে পেতে নেই।
যা পেয়েছি তাইতো অনেক,
বলে যায় শুধু আমার বিবেক।
মনটা কিছুতেই বশ মানেনা,
বিবেকের কথা মানতে চায় না।
শিকল পড়িয়ে মনের পায়ে,
আটকাতে পারিনা আজ কিসের দায়ে?
ভাঙ্গতে চায় সে সকল শৃঙখল,
খুলতে চায় সে সকল আগল।
না না না আর তা হতে দেবো না,
মন হেসে বলে বাঁধতে পারবি না।
নীরবে বসে আমাকেই শুন,
নতুন দিনের প্রহরকে গুন।
অস্ত রাগের ডাক না শুনে,
পূর্ব রাগকে রাখ মনের কোণে।
ভালোবেসে তুই জীবনকে দেখ,
নতুন করে আবার বাঁচতে শেখ।
আবার পাবি সুখের দেখা,
আর বেশিদিন থাকবি না তুই যে একা।
একে একে সব ফিরে আসবে,
আগের মতো আবার হৃদয় হাসবে।
সময়কে তুই সময় দে আজ,
সাজবি একদিন বিজয়ীর সাজ।
মনের কথায় আবার বুক বেঁধেছি,
সেই স্বর্ণালী দিনের অপেক্ষায় আছি।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *