আদালতে হত্যার মিথ্যা মামলা করার প্রতিবাদে ফুলবাড়ী অনলাইন প্রেসক্লাবে রাজেকা বেগমের সংবাদ সম্মেলন

আদালতে হত্যার মিথ্যা মামলা করার প্রতিবাদেফুলবাড়ী অনলাইন প্রেসক্লাবে রাজেকা বেগমের সংবাদ সম্মেলন

মোঃ আফজাল হোসেন দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার ফুলবাড়ী অনলাইন প্রেসক্লাবে মোছা. রাজেকা বেগম, দুলালী খাতুনের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজেকা বেগমের সংবাদ সম্মেলন। গতকাল রবিবার বিকেল ৪ টায় ফুলবাড়ী অনলাইন প্রেসক্লাবে ফুলবাড়ী উপজেলার পৌরসভা এলাকার ৫নং ওয়ার্ডের মো. মকছেদ আলীর স্ত্রী মোছা. রাজেকা বেগম (৩৬) এর দুলালী খাতুনের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে রাজেকা বেগম বলেন, দুলালী খাতুনের মাতা আনোয়ারা বেগম গত ০৮.১১.১৯ইং তারিখে ফুলবাড়ী থানায় ১৯জনের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে একটি জিডি করে। যাহার জিডি নং-৩২৯। ওই জিডির সূত্র ধরে পশ্চিম গৌরিপাড়া গ্রামে শিখা বেকারির সামনে জোরপূর্বক দুলালী খাতুন ও তার মা আনোয়ারা বেওয়া (৫৫) জানালে ভেঙ্গে দরজা করে সেই দরজা খোলাকে কেন্দ্র করে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। গত ০৫.১২.১৯ তারিখে দুলালী খাতুন নিজেই অসুস্থ দেখিয়ে ফুলবাড়ী হাসপাতালে গিয়ে টিকিট কেটে ঔষুধ নেন এবং বাসায় ফিরে আসেন।

পরে গত ১১ ডিসেম্বর ২০১৯তারিখে শিবনগর ইউনিয়নের দক্ষিণ বাসুদেবপুর এলাকার মৃত বাদশাহ মিয়ার মেয়ে দুলালী খাতুন তার স্বামীর বাড়ী পার্বতীপুর উপজেলার মোস্তাফাপুর ইউনিয়নের হরিহরপুর বালুপাড়া গ্রামে মৃত্যুবরণ করেন। দুলালী খাতুনের মৃত্যু কিভাবে হয়েছে তার মৃত্যুর সনদপত্র দিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান। সেখানে উল্লেখ করা হয় সে হৃদরোগে আক্তান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেন। স্থানীয় লোকজন স্বাভাবিক মৃত্যু হওয়ায় তাকে দাফন করেন।

এই মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুলালী খাতুনের মাতা মোছা. আনোয়ারা বেওয়া দিনাজপুর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-৫ ফুলবাড়ী, দিনাজপুর এ ৭জনকে আসামী করে মিথ্যা হত্যার মামলা দায়ের করেন। যাহার ফুলবাড়ী থানার মামলা নং- ৩৭৭/১৯, তারিখ- ২৩.১২.২০১৯। তিনি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, দুলালী খাতুনের মামলায় জড়িত করে যে মামলা দায়ের করেছে এর সাথে আমরা কোনো ভাবেই জড়িত নই। আমাদেরকে হয়রানি করার জন্য মৃত্যু বাদশা মিয়ার স্ত্রী মোছা. আনোয়ার বেওয়া এই মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। আমরা এই মিথ্যা মামলার সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *