“খানসামায় করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন আরো বারো জন”

“খানসামায় করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন আরো বারো জন”

এস.এম.রকি,খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: চারিদিকে যখন প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারনে মৃত্যুর খবর তখন আশার বানী শুনালো দিনাজপুরের খানসামা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। বৃহস্পতিবার হোম আইসোলেশন থেকে মুক্ত হলেন ১২জন। খানসামা উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্ত ৪১জন,সুস্থ রোগী ৩৪জন ও মৃত্যু ১ জন।
শুক্রবার (১০জুলাই) সকালে পাকেরহাটস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে করোনা জয়ী ১২জনকে সুস্থতার সার্টিফিকেট ও পুষ্টিকর খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেন মানবিক ইউএনও আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা.শামসুদ্দোহা মুকুল,মেডিকেল অফিসার ডা.ফারুক,ওসি শেখ কামাল হোসেন,পিআইও মাজহারুল ইসলাম,ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা শাহ, এমটিপিআই অশোক রায়, সাংবাদিকবৃন্দ ও হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ প্রমূখ।
উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জানা গেছে, করোনা জয়ী রোগীরা হলেন উপজেলার পাকেরহাট গ্রামের ধীমান দাস (৪৫), মজিবুল (২২),আলতাফ (৩০),আশা (১৭),আংগারপাড়া গ্রামের মমেন শাহ (৬০),গোবিন্দপুর গ্রামের শফিকুল (৪০), মারগাঁও গ্রামের মান্নান (৫৫),আগ্রা গ্রামের মোহাম্মদ আলী (৪৭),নলবাড়ী গ্রামের নূর মোহাম্মদ (২৫),গাড়পাড়া গ্রামের কাজল (৩০),হাসিমপুর গ্রামের মোস্তাকিম (২২),গোয়ালডিহি গ্রামের আনোয়ার (২৮)।
ইউএনও এবং স্বাস্থ্য বিভাগের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ছাড়পত্র পাওয়া ৬০বছর বয়সী মমেন শাহ বলেন,আল্লাহ’র রহমতে আমি এখন পুরোপুরি সুস্থ। সকলের অনুপ্রেরণা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ফলে দ্রুত সুস্থ হই।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা.শামসুদ্দোহা মুকুল বলেন, ‘করোনার কোনো নির্দিষ্ট চিকিৎসা না থাকলেও রোগীর লক্ষণ অনুযায়ী আমরা চিকিৎসা দিয়েছি। আর করোনা আক্রান্তদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা এবং রোগীর মনোবল বাড়ানো,পুষ্টিকর খাবার খাওয়া, যাতে তার শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।’
ইউএনও আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম বলেন,করোনাকে ভয় নয় জয় করতে হবে ও নিয়ম মেনে চলতে হবে। তাহলেই করোনা প্রতিরোধ করা সম্ভব। তিনি আরো জানান, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সকল স্তরের জনসমাগম নিরুৎসাহিত করতেছি এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে সচেতনতা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছি।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *