খুলনাকে বড় ব্যবধানে হারালো কুমিল্লা

বিপিএলের ৩৩তম ম্যাচে খুলনার বিপক্ষে বড় জয় পেয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। সোমবার চট্টগ্রামে খুলনা টাইটানসকে ৮০ রানের হারায় তারা।

এ জয়ের ফলে বিপিএল ৯ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে ইমরুল কায়েসের দলটি। সমান খেলায় সমান পয়েন্ট নিয়ে চিটাগং আছে দ্বিতীয় স্থানে।

এর আগে ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং দানব ইভেন লুইসের ব্যাটিং তাণ্ডবে বিপিএলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ করে ইমরুল কায়েসের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। লুইসের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে ২৩৭ রান সংগ্রহ করেছে তারা। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৮.৫ ওভারে ১৫৭ রানে অলআউট হয় খুলনা।

খুলনার হয়ে ব্রেন্ডন টেইল একাই লড়াই করেন। তিনি ৩৩ বলে পাঁচ বাউন্ডারি ও এক ছক্কায় ৫০ রান করেন। এছাড়া জুনায়েদ সিদ্দিকী ২৭, ব্রাথওয়েট ২২ ও শান্ত ১৪ রান করেন। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ করেন ১১ রান। কুমিল্লার হয়ে ওয়াজাব রিয়াজ ও আফ্রিদী তিনটি করে উইকেট নেন।

এর আগে সোমবার চট্টগ্রামে টস হরে ব্যাটিংয়ে নেমে লুইসের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে ২৩৭ রান সংগ্রহ করেছে তারা। বিপিএল ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় সেঞ্চুরির দেখা পেলেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ওপেনার এভিন লুইস। খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে ৪৭ বলে ঝড়ো ব্যাটিং করে তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগার উদযাপন করেন এই ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান।

চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই ঝড় তোলেন লুইস। তবে তামিম ইকবাল ২৯ বলে ২৫ রান করে দলীয় ৫৮ রানের মাথায় মাহমুদউল্লার বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন। ওয়ানডাউনে ব্যাটিংয়ে নেমে শূন্য রানে বিদায় নেন বিজয়।

এরপর অধিনায়ক ইমরুল কায়েস ব্যাটিংয়ে নেমে লুইসের সাথে ব্যাটিংয়ে ঝড় তোলেন। অবশ্য ইমরুলের সেই ঝড় বেশিক্ষণ স্থির ছিল না। ২১ বলে চার বাউন্ডারি ও দুই ছক্কায় ৩৯ রান করেন ইমরুল। এছাড়া পেরেরা ১১ ও আফ্রিদী ১ রান করে বিদায় নেন। তবে লুইসে ব্যাটিং তান্ড থামাতে পারেনি খুলনার কোন বোলার। শেষ মুহূর্তে শামসুর রহমান লুইসের ঝড়ে সঙ্গী হন।

লুইস ৪৯ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ১০ ছক্কায় ১০৯ ও শামসুর রহমান ১৫ বলে এক বাউন্ডারি ও দুই ছক্কায় ২৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। খুলনার হয়ে রিয়াদ ও বার্থওয়েট দুটি করে উইকেট নেন।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *