গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনে ভোটারের চেয়ে কর্মীদেরই কদর বেশী

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা ঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্থগিত হওডা গাইবান্ধা-৩ আসনে ভোটারের চেয়ে কদর বেড়েছে কর্মীদের। দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীরা নিজ নিজ কর্মীবাহিনী নিয়ে মাঠঘাট ও হাট-বাজারে প্রচারনায় আরও বেশি সরব হচ্ছেন। তারা সাধারণ ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা তেমন একটা না করলেও কর্মীদের মূল্যায়নে বেশী গুরুত্বারোপ করছেন। কর্মীবাহিনীর বিশাল মহড়া প্রদর্শন করছেন।
আগামী ২৭ জানুয়ারি ভোট গ্রহন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণার আর মাত্র তিনদিন বাকী। নির্বাচনী এলাকার গ্রামে গ্রামে প্রার্থীদের পদচারণা পরিলক্ষিত না হলেও হাটে বাজারে লিফলেট বিতরণসহ নানা প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন কর্মী-সমর্থকরা।
এ নির্বাচনের বিজয় ছিনিয়ে নিতে ইতোমধ্যে এ আসনে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও প্রচারনায় এগিয়ে রয়েছেন মহাজোট নৌকা প্রতিক প্রার্থী ডাঃ ইউনুস আলী সরকার। মহাজোটের অন্য ২ প্রার্থী হলেন জাতীয় পার্টি (এরশাদ) কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিষ্টার দিলারা খন্দকার শিল্পীর লাঙ্গল ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ (ইনু) কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এসএম খাদেমুল ইসলাম খুদির মশাল মার্কার ব্যানার-পোষ্টার শোভাবর্ধন করলেও অপর দুই প্রার্থী এনপিপির মিজানুর রহমান তিতুর আম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু জাফর মো. জাহিদ (নিউ) এর সিংহ মার্কা ভোটারদের নজরেই পড়ছে না।
নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা বলেন, এ আসনটি মহাজোট থেকে উন্মুক্ত করার ফলে একাধিক প্রার্থী নিয়ে বিভ্রান্তিতে পড়েছেন মহাজোটভূক্ত দলগুলোর নেতাকর্মীরা। ফলে শরিক দলের প্রার্থীরা এখন একে অপরের প্রতিপক্ষ হয়ে ভোট প্রার্থনায় মাঠে ময়দানে ঘুরছেন।
সাধারণ ভোটারদের প্রতিক্রিয়া জানতে পলাশবাড়ীর ভ্যান চালক মন্টু, লাল মিয়া আক্ষেপের সাথে বলেন, এই নির্বাচন উপলক্ষে দলীয় নেতাকর্মীদের পকেট ভারী হলেও আমাদের কপালে এক কাপ চা পর্যন্ত জুটছে না।
গাইবান্ধা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, এ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ১১ হাজার ৯৪১। এর মধ্যে সাদুল্লাপুর উপজেলায় ২ লাখ, ২৩ হাজার ৬৯৩। পলাশবাড়ী উপজেলায় ১ লাখ, ৮৮ হাজার ২৪৮ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

উল্লেখ্য, ১৯ ডিসেম্বর দিনগত রাতে ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষ প্রতীক প্রার্থী ড. টিআইএম ফজলে রাব্বী চৌধুরী মারা যাওয়ার কারণে গাইবান্ধা-৩ আসনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন স্থগিত করেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। পরবর্তীতে পুনঃতফসিল অনুযায়ী আগামী ২৭ জানুয়ারি ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *