গোবিন্দগঞ্জের বিদ্যালয়ের জরাজীর্ণ অবস্থা ও পাঠদান বিঘ্নিত হওয়ার অভিযোগ

গোবিন্দগঞ্জের.বিদ্যালয়ের জরাজীর্ণ অবস্থা ও পাঠদান বিঘ্নিত হওয়ার অভিযোগ

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে চাঁদপুর সিংগা স.প্রা.বিদ্যালয় নানাবিধ সমস্যায় জরাজীর্ন অবস্থা ও শিক্ষার্থীর মাঝে টিফিন বিস্কুট না দেওয়ায় পাঠদান বিঘ্নিত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রাখালবুরুজ ইউনিয়নে ১৯৯৫ সালে চাঁদপুর সিংগা প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থাপিত হয়। ২০১৩ সালের ১লা জানুয়ারী বিদ্যালয়টি জাতীয়করণ হয়েছে। শুরুতে বিদ্যালয়টি’র পড়ালেখার মান ভাল ছিল। বিদ্যালয়টির ভবন এখন ঝুঁকিপূর্ণ হয়েছে। বৃষ্টি আসলেই ছাঁদ চোয়ায়ে পানি পড়ে চেয়ার, টেবিলে, এছাড়া স্কুল মাঠের কোন প্রাচীর নেই, বর্ষা মৌসুমে মাঠটি পানিতে তলিয়ে যায়। এ কারণে শিক্ষার্থীরা স্কুলে আসতে চায় না।
২০১৮ সালে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক একটি ঘটনায় সাসপেন্ড হয়ে আছে। বর্তমানে বিদ্যালয়ে ৩ জন শিক্ষক দ্বারা পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে এবং অফিস সহকারী দাপ্তরিক অন্যান্য স্কুলে থাকলেও এখানে নেই, এ সব নানাবিধ সমস্যা থেকে পরিত্রান পেতে অভিভাবক, স্কুল পরিচালনা পর্ষদ ও স্থানীয় এলাকাবাসী উপজেলা শিক্ষা অধিদপ্তরের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা উম্মে সালমা বলেন, দেড় বছর যাবৎ বিস্কুট বন্ধ করে দেয়ায় শিক্ষার্থীরা স্কুলে আসতে চায় না এবং শিক্ষক সংকটের কারণে পাঠদান বিঘ্নিত হচ্ছে।
বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক সফিউল আলম হিরো বলেন, বিদ্যালয়ের অবকাঠামো সংস্কার, শিক্ষক সংকট, কেটে না উঠলে শিক্ষার উন্নয়ন সম্ভব নয়। আমরা বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ, আপনাদের মাধ্যমে গোবিন্দগঞ্জ প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করছি। যাতে বিদ্যালয়ের এসব সম্যসা দ্রুত সমাধান করে শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনা যায়।
গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ বলেন, বিস্কুটের অনুমোদন চেয়ে সংশ্লিষ্ঠ কৃর্তপক্ষের নিকট আবেদন করা হয়েছে ও বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করে সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *