গ্রেনেড হামলায় সংশ্লিষ্ট সকলকে শাস্তি পেতে হবে- ডেপুটি স্পিকার

গ্রেনেড হামলায় সংশ্লিষ্ট সকলকে শাস্তি পেতে হবে- ডেপুটি স্পিকার

গাইবান্ধা ঃ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার এডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া বলেছেন, জাতিসংঘের নেতৃবৃন্দ দাবী তুলেছেন বঙ্গবন্ধুকে বাংলাদেশে আবদ্ধ করে রাখা যাবে না। তারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বিশ্ববন্ধুর উপাধি দিয়েছেন। তিনি বলেন, ২১ আগষ্টের গ্রেনেড হামলা ছিল পূর্বপরিকল্পিত। তাই সেখানে মঞ্চ করতে দেয়া হয়নি। গ্রেনেড হামলার পর আহতদের চিকিৎসায় ঢাকা মেডিকেলের জরুরী বিভাগে কোন ডাক্তার ছিল না। ঘাতকদের হাত থেকে স্বয়ং আল্লাহ তায়ালা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে রক্ষা করেছেন। ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় সংশ্লিষ্ট সকলকে শাস্তি পেতে হবে। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে বিশ্বাসী ছিলেন না। মুক্তিযুদ্ধের সময় জিয়া পাকিস্তান সরকারের হুকুম পালনে ব্যস্ত ছিলেন।

বুধবার ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদ চত্বরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী, জাতীয় শোক দিবস ও ২১ আগস্ট বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদদের স্মরণে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। ফুলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর মন্ডলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সাঘাটা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির, ভাইস-চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম বিপ্লব, ফুলছড়ি উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আজহারুল ইসলাম বাবলু, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এটিএম রাশেদুজ্জামান রোকন, কঞ্চিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লিটন মিয়া, উপজেলা সন্ত্রাস প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগ নেতা শহিদুল ইসলাম, উদাখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান বাবু, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান সুজা, উদাখালী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহদী মাসুদ পলাশ, গজারিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি জিহাদুর রহমান মওলা, ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুদৌলা রাজু, জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ২১ আগষ্টে নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *