চীন-মঙ্গোলিয়ার পর এবার প্লেগ আতঙ্ক পৌঁছে গেল রাশিয়াতে, উৎকণ্ঠা বাড়ছে বিশ্ববাসীর

চীন-মঙ্গোলিয়ার পর এবার প্লেগ আতঙ্ক পৌঁছে গেল রাশিয়াতে, উৎকণ্ঠা বাড়ছে বিশ্ববাসীর

চীন ও মঙ্গোলিয়ার গণ্ডি টপকে এবার মারণ বুবোনিক প্লেগের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ল রাশিয়ায়। বুধবার মঙ্গোলিয়া লাগোয়া দুর্গম পূর্বাঞ্চলে ইঁদুর জীতীয় প্রাণীদের ওপরে টেস্ট শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন। এই সমস্ত প্রাণীরা বুবোনিক প্লেগের ব্যাকটেরিয়া বহন করছে কি না, সেই বিষয়ে তথ্য সংগ্রহের জন্য এই তৎপরতা। 

গত সপ্তাহে মঙ্গোলিয়ায় দু’টি বুবোনিক প্লেগের ঘটনা ধরা পরার পরে মারমোট শিকার বা এর মাংস না খাওয়ার জন্য সাইবেরিয়া অঞ্চলর বাসিন্দাদের কাছে আবেদন করেছে প্রশাসন।রাশিয়ার পূর্ব সাইবেরিয়ার অঞ্চলের বুরটিয়া মঙ্গোলিয়া সীমান্তে অবস্থিত। এই অঞ্চলে ইঁদুর জাতীয় প্রাণী মুখ্যত মারমোটদের ওপরে টেস্ট শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে রাশিয়ার খাদ্যের মান নিয়ামক সংস্থা Rospotrebnadzor। এই 
প্রতিষ্ঠানের স্থানীয় শাখার তরফে জানানো হয়েছে, প্লেগের অ্যান্টিজেন শনাক্ত করতে ২০২০ সালে যতগুলো মারমোটের ওপরে সমস্ত টেস্ট করা হয়েছে, প্রতিটি নেগেটিভ রেজাল্ট এসেছে। যদিও এখনই তারা সম্পূর্ণ আশ্বস্ত হতে নারাজ প্রশাসন। তাই মারমোটের মাংস না খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের।

চীনের পক্ষ থেকে সরকারিভাবে প্লেগের বিষয়টি ঘোষণা করার পড়ে নড়েচড়ে বসছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। পরিস্থিতির ওপরে নজর রাখা হচ্ছে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে মঙ্গলবার জানানো হয়েছে।

বুবোনিক প্লেগ একটি ভয়াবহ ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগ। সঠিক সময়ে চিকিৎসা না হলে মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কোনও প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির এতে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। চীনের খোভদ প্রদেশে সম্প্রতি দু’জন বাবোনিক প্লেগ আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। এছাড়া মঙ্গোলিয়া থেকেও এমন ঘটনা সামনে এসেছে। যে কারণে সে দেশের সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় বিশেষ সতর্কতা জারি করেছে রাশিয়া।

বিডি প্রতিদিন

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *