ঝিনাইদহের শৈলকুপায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ২০: বাড়ীঘর ভাংচুর

ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহের শৈলকুপায় প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলাসহ কমপক্ষে ২০জন আহত হয়েছে। এসময় ৫টি বাড়ীঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। আহতদেরকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের আনিপুর গ্রামে দফায় দফায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। জানা যায়, সম্প্রতি বড়দাহ দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এ নির্বাচনে সামাজিক মাতব্বর শরিফুল প্যানেলের প্রার্থী জিয়ারুল ইসলাম বিজয়ী হয় ও উম্মাদ প্যানেলের প্রার্থী বাছির পরাজিত হয়। এরই জের ধরে উভয় পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিলো। মঙ্গলবার সকালে উম্মাদ শেখের কর্মী সমর্থকরা শরিফুলের কর্মী সমর্থকদের উপর দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। পরে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় তৈরী অস্ত্র ঢাল, সড়কি, রামদা ও লাঠিসোটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে হাসি খাতুন, নবীরন নেছা, রোজিনা, বাতাসী, বৃদ্ধা শ্রীমননেছা, নিয়ামত, জামাল, খোকন, শহিদ, ওহাব, সলেমান, মহিউদ্দিন, দুলাল, উম্মাদ, রেজাউল, ও সুপাাসহ কমপক্ষে ২০জন আহত হয়। ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে শৈলকুপা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আরিফুল ইসলাম জানান, বড়দাহ দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন পরবর্তী সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে স্থানীয় দু’গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা চলে আসছিলো। এরই সুত্র ধরে মঙ্গলবার সকালে সঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি বর্তমানে পুলিশের নিয়ন্ত্রনে আছে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *