ঝিনাইদহে নতুন ২৫ জন করোনায় আক্রান্ত

ঝিনাইদহে নতুন ২৫ জন করোনায় আক্রান্ত

আশা এনজিও’র রিজিওনাল ম্যানেজারের করোনায় মৃত্যু সহ করোনা উপসর্গে আরো ২ জনের মৃত্যু!

ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহে আরও ২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৪১৫ জনে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৪৩ জন। স্থানীয় কোভিড হাসপাতালে প্রতিদিন রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এ মুহূর্তে সেখানে ভর্তি রয়েছেন ২২ জন। অন্যান্য হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও ৫৪ জন। ঝিনাইদহ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে রোববার এ তথ্য জানানো হয়। এদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে রোববার দুপুরে বেসরকারী আশা এনজিও’র শৈলকুপা অঞ্চলের রিজিওনাল ম্যানেজার আব্দুর রউফ (৫৫) মারা গেছেন। তিনি কোটচাঁদপুর উপজেলার দোড়া ইউনিয়নের সারুটিয়া গ্রামের ইয়াসিন বিশ্বাসের ছেলে ও উপশহর পাড়ার এ্যাড আব্দুর রাজ্জাকের ছোট ভাই এবং মরহুম সাব্দার হোসেন মহুরীর আপন শ্যালক। পরিবার পরিজন নিয়ে তিনি ঝিনাইদহ শহরের চানমারী পাড়ায় বসবাস করতেন। মৃত্যুর আগে তিনি যেমন কোন চিকিৎসা পাননি তেমনি লাশ বহনের জন্যও রোববার বিকালে কেও যানবাহন ভাড়া দেন নি বলে স্বজনরা অভিযোগ করেছেন। খবর পেয়ে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জিপ গাড়ি দিয়ে লাশ পরিবহনের ব্যবস্থা করেন বলে জানান সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বদরুদ্দোজা শুভ। নিহত’র শ্যালক মিনহাজ উদ্দীন জানান, তার দুলাভাই ৫/৬ দিন আগে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিতে যান ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে। কিন্তু সুস্থ বলে তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। এরপর আব্দুর রউফ জ্বরে আক্রান্ত হলে কর্তৃপক্ষ নমুনা গ্রহন করে। তিন দিন আগে তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। শ্যালক মিনহাজ উদ্দীনের ভাষ্যমতে তার দুলাভাইয়ের অবস্থা অবনতি হতে থাকলে হাসপাতালে কোন সিট নেই বলে জানানো হয়। রোববার দুপুরে পরিস্থিতি আরো খারাপ হলে হাসপাতলে নেওয়ার চেষ্টা করা হলে বাড়িতেই মৃত্যুবরণ করেন। ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বদরুদ্দোজা শুভ জানান, বিকালেই আব্দুর রউফের মৃতদেহ ঝিনাইদহ পৌর গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে। ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক আব্দুল হামিদ খান জানান, জেলা প্রশসনের তত্বাবধানে ইসলামী ফাউন্ডেশনের লাশ দাফন কমিটি আব্দুর রউফের জানাযা পড়িয়ে পৌর গোরস্থানে দাফন করে। এই নিয়ে তার দপ্তর ২৪ জনের লাশ দাফন করলো। আবার করোনা উপসর্গে মৃত আরও এক ব্যক্তির মরদেহ দাফন করা হয়েছে। তিনি ঝিনাইদহ জেলা শহরের খাজুরা গ্রামের মৃত নাসির উদ্দিন ম-লের ছেলে মো. আক্তার ম-ল (৫০)। রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এর আগে শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নিজ বাড়িতে মারা যান তিনি। মৃত ব্যক্তি জেলা শহরের মুন্সি মার্কেটে দর্জির কাজ করতেন। ইসলামিক ফাউন্ডেশন ঝিনাইদহের উপপরিচালক মো. আবদুল হামিদ খান জানান, সদর উপজেলা ফিল্ড সুপারভাইজার মো. আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে কমিটির সদস্যরা তার মরদেহ দাফন করেন। এদিকে ঝিনাইদহে করোনা উপসর্গে আরও ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তিরা হলেন, পৌর এলাকার খাজুরা জোয়ার্দ্দারপাড়া এলাকার এক বাসিন্দা। তিনি শহরের মুন্সি মার্কেটে দর্জির কাজ করতেন। করোনা উপসর্গ নিয়ে নিজ বাড়িতে মারা যান তিনি। ওদিকে শনিবার রাতে শহরের চাকলাপাড়ার মোসলেম আরেকজন করোনা উপসর্গ নিয়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। সে শহরের পোস্ট অফিস মোড়ের আলী গার্মেন্টস এর মালিক। ঝিনাইদহ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক আব্দুল হামিদ খান জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিদের জানাজা শেষে ইসলামিক ফাউন্ডেশন গঠিত কমিটির সদস্যরা তাদের লাশ দাফন সম্পন্ন করেছে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *