তুরাগে কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ৪

আটক

মোল্লা তানিয়া ইসলাম তমাঃ রাজধানীর তুরাগে, ১৫ বছর বয়সী এক এতিম কিশোরীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ৪জনকে গ্রেফতার করেছে তুরাগ থানা পুলিশ । তুরাগ থানার একটি মামলা সুত্রে জানাযায়, প্রায় ৪ বৎসর পুর্বে ঐ কিশোরীর বাবার মৃত্যু হয় । তার পর থেকে প্রতিবন্ধী মাকে নিয়ে তুরাগের কালিয়ার ঠেক বস্তিতে বসবাস করে আসছিল ঐ কিশোরী । গত ১৮মে রাত আনুমানিক ২টার দিকে কিশোরীর শয়ন কক্ষের দরজা ভেঙ্গে প্রবেশ করে ১/ মোহন মোড়ল (৩৫), ২/ মোঃ আরিফ (২০), ৩/ মোঃ ইউসুফ (১৯), ৪/ মোঃ সোহেল রানা (৩০), নামে ৪ লম্পট । এসময় মোঃ ইফসুফ কিশোরীর মুখ চেপে ধরে এবং মোঃ সোহেল দরজায় দাড়িয়ে পাহারা দিতে থাকে আর মোহন মোড়ল ও মোঃ আরিফ কিশোরীকে পালা ক্রমে ধর্ষণ করতে থাকে । এক পর্যায় প্রতিবেশীরা বিষয়টি আচ করতে পেরে এগিয়ে আসলে, ৪ লম্পট এই ঘটনা কাউকে যেন জানানো না হয় জানালে পরিণতি ভয়াবহ হবে বলে হুমকি দিয়ে চলে যায় । প্রতিবেশীরা ঘটনাটি মোবাইলের মাধ্যমে কিশোরীর মামাকে জানালে, সকালে কিশোরীর মামা ঘটনাস্থলে এসে ভাগ্নিকে সাথে নিয়ে তুরাগ থানায় এসে ধর্ষণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেন যার নং ১৯, তাং ১৯/৫/২০১৯ইং । মামলা হওয়ার পর তুরাগ থানা পুলিশ দিন ভর অভিযান চালিয়ে ৪ লম্পটকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় । ঐ দিনই শারীরিক পরীক্ষার জন্য ওই কিশোরীকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে তাকে ঢামেকের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টার-ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে এবং গ্রেপ্তারকৃত ৪লম্পটকে ২০মে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ । গ্রেপ্তারকৃত মোহন মোড়ল, বাগেরহাট জেলা সদরের, আড়পাড়া এলাকার মৃত লিয়াকত আলী মোড়লের ছেলে । মোঃ আরিফ, গাইবান্ধা জেলা সদরের, তুলসীঘাট এলাকার, মৃত মজিবুর রহমানের ছেলে । মোঃ ইফসুফ, কুমিল্লা জেলার, দাউদ কান্দি থানা, গোলমারী বাজার এলাকার, মোঃ কবির হোসেনের ছেলে এবং মোঃ সোহেল রানা, চাঁদপুর জেলার, মতলব(উত্তর) থানার, মাদারতুলী এলাকার, শহিদুল্লার ছেলে । বর্তমানে তারা সকলেই তুরাগের কালিয়ার টেক এলাকায় ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করত

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *