দলকে শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে: নাহিদ

দলকে শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদেরঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে: নাহিদ

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি: গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।  বুধবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে গোলাপগঞ্জ পৌরসভা প্রাঙ্গণে গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইকবাল আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদের পরিচালনায় কাউন্সিল পূর্ববর্তী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক শিক্ষামন্ত্রী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ জনগণের দল। শেখ হাসিনার নেতৃত্ব আওয়ামী লীগ সু সংগঠিত হয়েছে। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আওয়ামী লীগকে গড়ে তুলতে হবে। দলকে শক্তিশালী করতে হলে সৎ দক্ষ নেতৃত্বের প্রয়োজন। তিনি আরও বলেন, ২০০৪ সালে বিএনপির দুঃশাসনের সময় আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়েছিল। সেই সময় থেকে উপজেলার ত্যাগী নেতারা আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তাদের ত্যাগের এসময় নুরুল ইসলাম নাহিদ দলকে শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহবান জানান। সভা চলাকালীন সময়ে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে বেশকটি মিছিল সহকারে নেতাকর্মীরা সম্মেলন স্থলে যোগদান করেন।
এসময় প্রধান আলোচক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বলেছেন, গোলাপগঞ্জের জন প্রতিনিধি নুরুল ইসলাম নাহিদ ও গোলাপগঞ্জের কৃতি সন্তান ইনাম আহমদ চৌধুরীর মত লোক আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে থাকায় গোলাপের সৌরভ পুরো দলের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে।
তিনি বলেন, বিএনপি একটি অপরাধীদের সংগঠন। তারা ক্ষমতায় থাকাকালীন দেশটাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। এতিমের টাকা চুরির অপরাধে বিএনপির নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া আজ জেলে আছেন। খালেদা জিয়া আর কখনো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন না। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ইনাম আহমদ চৌধুরী বলেন, আওয়ামী লীগ দেশের জন্য কাজ করে। জনগনের দল হিসেবে আমি আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি। ঘরের ছেলে আবার ঘরে ফিরে এসেছি। আমরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে আওয়ামী লীগকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। আর আওয়ামী লীগ দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ বলেছেন, আওয়ামী লীগের কার্যক্রমে তৃণমূল নেতাকর্মীদের অবশ্যই মূল্যায়ন করতে হবে। তৃণমূল নেতাকর্মীদের ত্যাগের কারণেই আজ আওয়ামী লীগ ক্ষমতায়। গোলাপগঞ্জের অনেক নেতার কারণে সিলেটে আওয়ামী লীগ সংগঠিত হয়েছে। আওয়ামী লীগে কোন অনুপ্রবেশকারীর ঠাঁই নেই, ত্যাগী নেতাকর্মীদের দিয়েই দলকে সুসংগঠিত করা হবে। আগামী ৫ ডিসেম্বর সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে সফল করার জন্য তিনি সবার প্রতি আহবান জানান। বিশেষ অতিথি কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সদস্য সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি, সাবেক সিটি মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরার বলেছেন, গোলাপগঞ্জে বরাবরই আওয়ামী লীগ একটি শক্তিশালী অবস্থানে ছিল। যোগ্য নেতৃত্বের মাধ্যমেই আগামীতেও গোলাপগঞ্জে আওয়ামী লীগ শক্তিশালী অবস্থানে থাকবে এটা আমি প্রত্যাশা করি। অনুষ্ঠানের শুরুতে সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী, সাবেক এমপি সৈয়দা জেবুন নেছা হক, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা কবির উদ্দিন, গোলাপগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের নব-নির্বাচিত সভাপতি আমিনুল ইসলাম রাবেল, গোলাপগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন। এসময় মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েছ এমপি, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাসুক উদ্দিন, কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরওয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন ইসলাম কামাল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট নিজাম উদ্দিন, নাছির উদ্দিন খান, বিজিত চৌধুরী, জগলু চৌধুরী, সিলেট সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর অ্যাডভোকেট সালেহ আহমদ সেলিম, গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান, সাবেক মেয়র জাকারিয়া আহমদ পাপলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আলী আকবর ফখর, পরিবহন শ্রমিক নেতা সেলিম আহমদ ফলিক, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি খায়রুল হক প্রমুখ।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *