নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে  ট্রাক চালক কর্তৃক কলেজ ছাত্রী ধর্ষন

প্রেমিকের সাথে ঘুরতে এসে গণধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী, আটক ৩
মাফি মহিউদ্দিন কিশোরগঞ্জ(নীলফামারী)প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের  উত্তর পুষনা কাচারীপাড়া গ্রামে  ট্রাক চালক কর্তৃক কলেজ ছাত্রী ধর্ষনের ঘটনা ঘটেছে।
জানা যায়, ঈদের দিন সন্ধ্যায় জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার গাড়াগ্রাম আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে স্থানীয় বিএম কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রীটি হাটাহাটি করছিল। এ সময় ট্রাক চালক শরিফুল ইসলাম(৩৫) তাকে একা পেয়ে স্কুল রুমে জোড়পূর্বক ধর্ষন করে। ওই ট্র্াক চালক উপজেলার সদর ইউনিয়নের পুষনা  গ্রামের কবির মিয়ার ছেলে। কলেজ ছাত্রীটি একই গ্রামের মৃত খাদেমুল ইসলামের মেয়ে। তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে পুলিশ পাহাড়ায় তার চিকিৎসা চলছে। বুধবার সেখানে ডাক্তার পরীক্ষায় ধর্ষনের আলামত পাওয়া যায়।
ছাত্রীর বড় ভাই সেলিম ইসলাম জানান, বাড়ির অদুরে ওই স্কুলটি। সন্ধ্যায় ছোট বোন স্কুল মাঠে হাটাহাটি করছিল। অন্ধকার নেমে এলে সে বাড়িতে ফিরে না আসায় আমি স্কুলে মাঠে গিয়ে দেখি দুই জন যুবক আমাকে দেখে মোটরসাইকেল নিয়ে দ্রুত চলে যায়। সামনে এগিয়ে গেলে গ্রামের ট্রাক চালক শরিফুলকে দেখতে পাই। স্কুল ঘরে এগিয়ে গেলে ট্রাক চালক শরিফুল পালিয়ে যায়। এ সময় বস্ত্র বিহিন  অবস্থায় আমার বোনকে মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখি। আমার চিৎকারে লোকজন ছুটে এলে বোনকে উদ্ধার করে একটি মাইক্রোবাসে করে রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করি।
এলাকাবাসী জানায় উক্ত ট্রাক চালক জেলার বাহিরে ট্রাক চালায়। সে ঈদে বাড়ি এসেছিল।এসেই ধর্ষনের ঘটনা ঘটিয়ে পালিয়ে গেছে।
কিশোরগঞ্জ থানার ওসি হারুন অর রশীদ জানান রংপুরে পুলিশ পাহাড়ায় মেয়েটির চিকিৎসা চলছে। মেয়েটির জবানবন্দি এবং ডাক্তারী পরীক্ষার রিপোট হাতে পেলে আসামীদের গেফতার করা হবে।
Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *