পার্বতীপুরের ভেড়ভেড়ি পুকুর প্রকৃতির অপরুপ সোভায় সৌন্দয্যের জৌলুস ছড়াচ্ছে

পার্বতীপুরের ভেড়ভেড়ি পুকুর প্রকৃতির অপরুপ সোভায় সৌন্দয্যের জৌলুস ছড়াচ্ছে

আল মামুন মিলন, পার্বতীপুর(দিনাজপুর)প্রতিনিধি
এক সময় স›ধ্যা হলেই যেখানে ভয় আতংক লেগেই থাকত মানুষের মনে।এখন সেখানে আর ভয়ের লেশ নেই কোন আতংক নেই পার্বতীপুরের সেই বেড়ভেড়ি পুকুরর পাশ দিয়ে রাস্তা চলাচলে। পুকুরটির চারপাশ দিয়ে ঝোঁপ ঝাঁড় অন্ধকার থাকায় চোর- চোরঠা সাপ পোকা মাকড়ের ভয়ে সন্ধ্যা হলেই রাস্তাটির পাশ দিয়ে চলাফেরা ছিল খুবই কম। এখন পুকুরটিকে সংস্কার করে মৎস্য চাষের খামার ও পাশের ঝোপঝাড় কেটে আম কাঠাল সহ লাগানে হয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির কাঠের গাছ। পুকুরের পশ্চিম পাশে রযেছে দুটি প্রবেশ গেট। গেটের পাশে নামাজ ঘর ও উত্তর পাশে রয়েছে কবরস্থান। পুকুরটির চারপাশ ইটের ঘেরা ও উঠানামার স্থানে নির্মান করা হয়েছে সৈখিন শিড়ি। সেখানে পাখির কোলাহল ছায়া ঢাকা মনোমুগ্ধকর পরিবেশ যেন প্রকৃতির অপার সৈন্দয্যের বিরাণ ভুমি এখন ভেড়ভেড়ি পুকুর। এটির চারিদিকে রয়েছে তারের ঘেরা। পুকুরের পাশ দিয়ে শহর প্রবেশের প্রধান রাস্তাটি এখন আর কাচা কাদা মাটি নেই। পাকাকরন করা হয়েছে ৯ কিলোমিটার সড়কপথ। সেই ঘুতঘুতে অন্ধকার কাটিয়ে আলো ছড়াতে পুকুরের রাস্তায় বসানো হয়েছে সোলার স্টিক লাইট।দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের দরিখামার গ্্রামের পাশে শহর প্রবেশের প্রধান সড়কের পাশেই অবস্থিত অপার সৌন্দয্যের বিরাণভুমি প্রায় এক একক জায়গা জুড়ে এই বেড়ভেড়ি পুকুর। পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হাফিজুল ইসলাম প্রামানিক তার নিজ উদ্বেগে পুকুরটির সংস্কার কাজ শুরু করে উন্নয়ন ও আধুনিকায়নে রুপ দেন। তিনি বলেন সাধারন মানুষের নিরাপত্তা শংকা কাটিয়ে নির্বিঘ্নে চলাচলের সুবিধা পেতে জরাজির্ন এই ভেড়ভেড়ি পুকুরের সংস্কার কাজ শুরু করি।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *