পার্বতীপুরে হটাৎ করে লবন সংকটের গুজব অতিরিক্ত দামে লবন বিক্রি ১০ব্যবসায়ীর ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা

পার্বতীপুরে হটাৎ করে লবন সংকটের গুজবঅতিরিক্ত দামে লবন বিক্রি ১০ব্যবসায়ীর ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা

আল মামুন মিলন, পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
দিনাজপুরের পার্বতীপুরে আজ মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দুপুর থেকে হটাৎ করে লবনের দাম বৃদ্ধি ও সংকটের গুজব ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি যানাযানি হলে শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত হাট বাজার গুলোতে লবন কেনার হিড়িক পড়ে যায়। গ্রামের বাজার গুলোতে সংকট সৃষ্টি করে এক শ্রেনীর ব্যবসায়ীরা। লোকজন লবন কিনতে ছুটতে থাকে শহরের দিকে। শহরের মুদি দোকানগুলোতে লবন কেনার ভিড় জমে যায়। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে মুদি দোকানদার ও ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত মুল্যে লবন বিক্রি শুরু করে। বিকেল ৪ টার দিকে অভিযানে নামে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যজিস্ট্রেট শাহনাজ মিথুন মুন্নি। এসময় নির্ধারিত দামের চেয়ে অতিরিক্ত দামে লবন বিক্রির দায়ে শহরের নতুন বাজার এলাকার কুদ্দুস ট্রেডার্সকে ১০ হাজার টাকা, মজনু স্টোরকে ৫শ টাকা সহ ১০ মুদি ব্যাবসায়ীকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইনে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। লবন বাজারে অতিরিক্ত দামে বিক্রির খবরে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যজিষ্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহনাজ মিথুন মুন্নির নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) আবু তাহের মোঃ শামসুজ্জামানও মডেল থানা পুলিশ। ভ্রাম্যমান আদালতের মেজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহনাজ মিথুন মুন্নি সাংবাদিকদের জানান, আমরা হটাৎ করে শুনতে পেলাম বাজারে চড়া দামে লবন বিক্রি হচ্ছে। এটি আসলে একটি কুচক্রি মহল কর্তৃক গুজব সৃষ্টি হয়েছে। যেটি আসলে সত্যি নয়, আমাদের লবনের কোন সংকট নেই। লবন আমাদের আমদানী করতে হয়না। দেশে লবনের যথেষ্ট মজুদ রয়েছে। এ সংবাদ পাঠানো পর্যন্ত শহরের পুরাতন বাজার এলাকায় অভিযান চলছিল ।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *