পিতা তোমাকে কথা দিলাম, তোমার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ আমরা গড়ে তুলব

পিতা তোমাকে কথা দিলাম, তোমার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ আমরা গড়ে তুলব

‘আজকের দিনে এই প্রতিজ্ঞাই আমরা করি—পিতা তোমাকে কথা দিলাম, তোমার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ আমরা গড়ে তুলব, এটাই আমাদের অঙ্গীকার আজকের দিনে।’

জাতির পিতার স্বপ্নের ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলার অঙ্গীকার এভাবেই পুনর্ব্যক্ত করে প্রতিজ্ঞা করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুক্রবার (১৬ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এ অঙ্গীকারের মাধ্যমেই নিজের বক্তব্য শেষ করেন তিনি। সভার শুরুতে ১৫ আগস্টের শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা করা হয়।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘তিনি (বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান) ৭ মার্চের ভাষণে শেষ কথা বলেছেন, প্রয়োজনে বুকের রক্ত দেব। আর সেই রক্তই তিনি দিয়ে গেছেন। আমাদের সেই রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে তার স্বপ্ন বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে। ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলা, সেই সোনার বাংলাদেশ আমরা গড়ে তুলব।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজ অন্তত এইটুকু বলতে পারি। তার আদর্শ নিয়ে আমরা চলেছি। কৃতজ্ঞতা জানাই দেশবাসীর প্রতি। বাবা-মা-ভাই সব একদিনে হারিয়ে নিঃস্ব-রিক্ত হয়েছিলাম। দেশ ছেড়ে যখন যাই সবই ছিল, যখন ফিরে আসি শূন্য। কেউ নেই। সব হারিয়ে কিন্তু পেয়েছিলাম লাখো মানুষ। তাদের আপন করে নিয়েছি। আর আওয়ামী লীগের অগণিত নেতাকর্মী, মুজিব আদর্শের সৈনিক, তারাই আমাকে আপন করে নিয়েছে। সেখানেই পেয়েছি বাবা-মা-ভাইয়ের ভালোবাসা, এখানেই আমার সব থেকে বড় শক্তি। সেখান থেকে আমার বড় প্রেরণা।’

তিনি বলেন, ‘একটা জিনিসই চিন্তায় রেখেছি—আমার বাবা এ দেশটা স্বাধীন করেছেন, এ দেশকে গড়ে তুলতে হবে। মানুষকে মানুষের মতো বাঁচার সুযোগ করে দিতে হবে। উন্নত জীবন দিতে হবে। ক্ষুধামুক্ত দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়েত হবে।’

এসব কথা বলার সময় আবেগে গলা ভারী হয়ে আসে সরকারপ্রধানের। আবেগ সামলে নিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজ সারাবিশ্ব বাংলাদেশের দিকে তাকিয়ে থাকে। তারা অবাক হয় যে, এত দ্রুত কিভাবে একটা দেশ উন্নত হতে পারে। হতে পারে তখনই যখন যারা স্বাধীনতা অর্জনের জন্য ত্যাগ স্বীকার করে, যারা নীতি-আদর্শ নিয়ে রাজনীতি করে তারা যদি ক্ষমতায় থাকে, তাহলে একটা জাতি উন্নত হয়, একটা জাতি এগিয়ে যেতে পারে। কিন্তু যারা পরাজিত শক্তির দোসর তারা ক্ষমতায় থাকলে কোন জাতি এগোয় না, কোনো জাতি উন্নত হতে পারে না।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজ জাতির পিতা আমাদের মাঝে নেই। কিন্তু তার আদর্শ আমাদের মাঝে আছে। সেই আদর্শ নিয়ে রাজনীতি করলে দেশের মানুষের আস্থা-বিশ্বাস পাবেন, সম্মান পাবেন এবং দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি শুধু এইটুকুই বলব আজকের দিনে—যে শোক-ব্যথা বুকে নিয়েও এ দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছি শুধু আমার বাবার কথা চিন্তা করে। তিনি কীভাবে কষ্ট স্বীকার করেছেন, কীভাবে জীবনের সবকিছু বিসর্জন দিয়েছেন এই দেশের জন্য।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, মোহাম্মদ নাসিম, আবদুল মতিন খসরু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, সদস্য অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *