পীরগঞ্জে জমি-জমা বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে একের পর এক মামলা

পীরগঞ্জে জমি-জমা বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে একের পর এক মামলা।

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি:
রংপুরের পীরগঞ্জে জমি-জমা বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে মকবুল হোসেন নামের এক প্রভাবশালীর অত্যাচারে হাসেন আলী ও আব্দুস সাত্তারের নামের ০২ ব্যক্তির বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী ও কৃষক পরিবারটি বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। মামলা ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে টুকুরিয়া ইউনিয়নের গোপীনাথপুর গ্রামের আজিজার রহমানের পুত্র হাসেন আলী, আব্দুল সাত্তার একই গ্রামের আব্বাস আলীর পুত্র মকবুল হোসেন গোপীনাথপুর মৌজা জে.এল.নং-৩৪, সিএস খতিয়ান নং-২৬৯, এস.এ খতিয়ান নং-৩৮৪, দাগ নং-৪৪৫, হাল দাগ নং-৭৬৫, মোট জমির পরিমান-১০২ শতক, বর্ণিত জমির মধ্যে মেছের ও মমদেল হোসেন ৬৮ শতক জমি বিক্রি করে দেয়। পরবর্তীতে হাসেন আলী ও আব্দুস সাত্তার পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া বর্ণিত সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসছেন কিন্তু ওই জমির মালিকানা দাবী করে মকবুল হোসেন, গেন্দা শেখ, আশিকুল, ও শফিকুল নেতৃত্বে একদল ভাড়াটিয়া বাহিনী বিগত ১০ জানুয়ারী/১৬ইং তারিখে হাসেন আলীর আখ ক্ষেত গায়ের জোরে কেটে পেলে গেন্দা শেখ ও মকবুল হোসেন। এঘটনায় হাসেন আলী বাদী হয়ে পীরগঞ্জ থানায় মামলা করলে গেন্দা শেখের পুত্র জামিন না হলে বিজ্ঞ আদালত আশিকুল ইসলামের গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে। এদিকে গত শুক্রবার রাত্রে পীরগঞ্জ থানার পুলিশ আশিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করে রংপুর জেল হাজতে প্রেরণ করে। এ ঘটনার জেরে ওইদিন রাত্রেই হাসেন আলীর ধান ক্ষেত কেটে মকবুল হোসেন নিজে ধান রোপন করেছেন মর্মে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন। এরই প্রেক্ষিতে পীরগঞ্জ থানার এ.এস.আই আলমগীর হোসেন ঘটনাস্থল পরিশর্দন করেছেন। ভুক্ত ভোগী হাসেন আলী জানান পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া জমি ভোগদখল করে আসছি। আমার পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছেন মকবুল হোসেন একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে সর্বশান্ত করে ফেলেছে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *