প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় ফায়ার সার্ভিস আধুনিকায়ন হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় ফায়ার সার্ভিস আধুনিকায়ন হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনায় ফায়ার সার্ভিসের আধুনিকায়ন ও ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল বাঙালি জাতি অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের মাধ্যমে বিশ্বের দরবারে মর্যাদার সঙ্গেমাথা উঁচু করে দাঁড়াবে। বর্তমান সরকার বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পূর্বাচলে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এসব কথা বলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ফায়ার সার্ভিসকে আধুনিক যুগোপযোগী করে তুলতে ৬২ হাজার অগ্নিসেনাকে দক্ষ ভলান্টিয়ারের প্রশিক্ষণ দিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে। অগ্নিকাণ্ড ছাড়াও দেশে যেকোনো দুর্যোগপূর্ণ সময়ে অগ্নিসেনা দল পরিস্থিতিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস নেপালের ভূমিকম্পে দুর্যোগ মোকাবিলায় অংশগ্রহণ করে সারা বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছে।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, আগামী জুনে ৫৬৭টি স্টেশন সম্পন্ন হবে। ২০২২ সালে ৭শ’ স্টেশন হবে।মুন্সীগঞ্জে অত্যাধুনিক ফায়ার ফ্যাকাল্টির কাজ চলছে। ২০ তলা পর্যন্ত উঁচুতে কাজ করতে সক্ষম। নদীমাতৃক দেশ হিসাবে নদী ফায়ার স্টেশনেরও কাজ চলছে। এমনকি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেশের সকল উপজেলায় ফায়ার স্টেশন হচ্ছে। পরে মন্ত্রী একযোগে সারা দেশে ফায়ার সার্ভিস সপ্তাহের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এ সময় প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের শুভেচ্ছা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক), স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের (সুরক্ষা ও সেবা) সচিব মো. শহীদুজ্জামান, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসেন, পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক মেজর জেনারেল শাকিল আহমেদ, ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন ম্যান্টেনেন্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিল্লুর রহমান, প্রশিক্ষক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জুলফিকার রহমান, পরিচালক প্রশাসন (অর্থ) মো. হাবিবুর রহমান, নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দিন, রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম, কাঞ্চন পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান ছালাউদ্দিন ভূঁইয়াসহ সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী ও নৌবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সকাল সোয়া দশটায় রূপগঞ্জের পূর্বাচল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশনে এসে পৌঁছান। বেলুন উড়িয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ ২০১৯-এর উদ্বোধন করেন। এ সময় প্যারেড ও গার্ড অব অনারের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অভিবাদন জানানো হয়।অনুষ্ঠানে গত তিন বছরে মানুষের জীবন ও সম্পদ রক্ষায় সাহসিকতা ও বীরত্বের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ২০ জনকে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সেবা পদক ও বনানীতে এফ আর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব পালনকালে নিহত ফায়ারম্যান সোহেল রানাকে মরণোত্তর পদক প্রদান করেন।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *