ফোন পাওয়ার পরেই বাড়িতে বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী উপহার হিসেবে পৌছায় দিচ্ছেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা রন্জু

ফোন পাওয়ার পরেই বাড়িতে বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী উপহার হিসেবে পৌছায় দিচ্ছেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা রন্জু
প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের প্রকোপে সারা দেশের যে বিপর্যয় এই বিপর্যয়ের মুহুর্তে রংপুর সিটিকর্পোরেশনের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ধারাবাহিক ভাবে নিজ অর্থায়নে দুইশত পঞ্চাশ ভিক্ষুক,ভবঘুরে,দিনমজুর,রিকশা চালক,ভ্যান চালক,পরিবহন শ্রমিক,রেস্টুরেন্ট শ্রমিক,ফেরিওয়ালা,চা বিক্রেতা সহ নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরণ করছেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক এরশাদুল হক রঞ্জু।আট নম্বর ওয়ার্ড অত্যন্ত গরীব এলাকা হওয়ায় সকলের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব না হওয়ার কারণে তিনি প্রতিদিন বাছাই করে ঘরে ঘরে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য উপহার সামগ্রী পৌছায় দিচ্ছেন।আনাছটারীর বেদবা খাবেরন বেওয়া বলেন-অন্যের বাড়িত থালাবাটি মাঝার কাজ করি করোনার কারণে ওমার বাড়িত যাইবার দেয় না,কি খাও এখন?এমন সময় সংবাদ পাই হামার অঞ্জু খাবার দিচ্ছে,অঞ্জুর বাড়িত গেইলে ওমার মাও ১টা খাবারের ব্যাগ দেয়।মোর মনটা আনন্দত ভরি গেলো।সৎবাজের চায়ের দোকানি বাবুল বলেন করোনা কারণে দোকান বন্ধ,কি খাইম চিন্তায় ছিনু হঠাৎ দুপুরে খাবারের ব্যাগ নিয়ে আসে অঞ্জু ভাই।আল্লাহ যুগযুগ অঞ্জু ভাইক বাচি রাখুক।এসব কর্মহীন মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক এরশাদুল হক রঞ্জু।বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে দিনে ও রাতের আঁধারে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন তিনি।তিনি বলেন আড়াই শতাধিক পরিবারকে দেয়া শেষ হয়েছে এরপরে ও কিছু মানুষ ফোন করে কান্নাকাটি করে বিধায় তাদের বাসায় বাসায় গিয়ে ৫ দিনের খাদ্য উপহার সামগ্রী দিয়ে আসতেছি।এসময় তিনি সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদের যে যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।।
Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *