মশিউর রহমানকে ভিটে-মাটি থেকে উচ্ছেদের প্রতিবাদে রংপুরে নাগরিক সমাজের মানববন্ধন-সমাবেশ।

মশিউর রহমানকে ভিটে-মাটি থেকে উচ্ছেদের প্রতিবাদে রংপুরে নাগরিক সমাজের মানববন্ধন-সমাবেশ।

রংপুর নগরীর মুলাটোল পাকারমাথা নিবাসী মশিউর রহমান ও তাঁর পরিবারকে প্রভাবশালী আকিফুল ইসলাম কর্তৃক জোরপূর্বক পৈত্রিক বাড়ী হতে উচ্ছেদ, হামলা-ভাংচুর ও লুটপাটের প্রতিবাদে গতকাল ১৪ ডিসেম্বর শনিবার সকাল ১০.৩০ টায় রংপুর প্রেসক্লাব চত্বরে নাগরিক সমাজের উদ্যোগে মানববন্ধন-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। রাজনীতিক ও সাবেক ছাত্রনেতা পলাশ কান্তি নাগ এর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাৎ হোসেন, মোজাফফর হোসেন চাঁদ, অধ্যাপক চিনু কবীর, সমাজকর্মী অলোক নাথ, নিপীড়ণ বিরোধী নারীমঞ্চের আহবায়ক নন্দিনী দাস, রংপুর পদাতিকের সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির সুমন, বিজ্ঞান চেতনা পরিষদের অ্যাডভোকেট রায়হান কবীর, সাংবাদিক সাইফুল্লাহ খাঁন প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, নিজের পৈত্রিক ভিটে-মাটি ফিরে পেতে গত ৪ দিন যাবৎ রংপুর প্রেসক্লাব চত্বরে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে অনশন করছে মশিউর রহমান। প্রশাসনের তরফ থেকে এখন পর্যন্ত আশ্বাস ছাড়া কার্যকর কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় অনাহারে তীব্র শীতকে উপেক্ষা করে এই পরিবারটি অনশন অব্যাহত রেখেছে।
মশিউর রহমানকে যেভাবে ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ করা হয়েছে তা চরম অন্যায় ও অমানবিক। মশিউর রহমানকে যে সম্পত্তি থেকে উচ্ছেদ করা হয়েছে সে সম্পত্তির বিষয়ে দেওয়ানী আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। দেওয়ানী আদালতের মামলার রায়ে যদি মশিউর রহমান উক্ত সম্পত্তি প্রাপ্ত না হয় তাহলে সে আদালতের রায় মাথা পেতে নিবে। কিন্তু মামলা নিস্পত্তি না হওয়ার আগে পেশীশক্তি ও অর্থের জোরে প্রকাশ্য দিবালোকে ওই পরিবার ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ করেও সন্ত্রাসীরা বীরদর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছে। রংপুর কোতয়ালী মেট্রোপলিটন থানায় মামলা হলেও পুলিশ প্রশাসন আসামীদের গ্রেফতার করেনি।
৪ দিন যাবৎ অনশনে পরিবারের সদস্যরা অসুস্থ হয়ে পড়েছে।
কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটলে এর দায় কে নেবে?
বক্তারা,অবিলম্বে মশিউর রহমানকে নিজ পৈত্রিক ভিটে-মাটিতে পুনর্বহাল এবং হামলা-ভাংচুর ও লুটপাটের সাথে জড়িতদের বিচার দাবি করেন।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *