রংপুরে বিভাগীয় সাহিত্য সম্মেলন: রংপুর হচ্ছে সাহিত্য-সংস্কৃতির সূতিকাগার- আনোয়ারা সৈয়দ হক

রংপুরে বিভাগীয় সাহিত্য সম্মেলন: রংপুর হচ্ছে সাহিত্য-সংস্কৃতির সূতিকাগার- আনোয়ারা সৈয়দ হক

প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক বলেছেন, প্রাচীনকাল থেকেই রংপুর হচ্ছে সাহিত্য-সংস্কৃতির সূতিকাগার। স্বাধীনতার বিরোধী চেতনাধারীদের ষড়যন্ত্রে রংপুরসহ দেশের কোন অঞ্চলের সাহিত্য-সংস্কৃতির ক্ষতি হতে দেয়া যায় না। গত রবিবার বিকেলে রংপুর টাউন হলে অনুষ্ঠিত রংপুর বিভাগীয় সাহিত্য সম্মেলন-২০১৯ এর সমাপনী পর্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি আরও বলেন, দেশ থেকে দুর্নীতি সমূলে উৎপাটন করতে হলে নারীদের আগে সচেতন হতে হবে। এদেশে যদি প্রত্যেক স্ত্রী দৃঢ় প্রত্যয় নেন যে, তিনি তাঁর সংসারে ঘুষের টাকা প্রবেশ করতে দেবেন না, তাহলে স্বামীরা ঘুষ ছেড়ে দিতে বাধ্য হবেন।
‘বিশুদ্ধ আত্ম, সুন্দর সমাজ’- এই শ্লোগান’ কে প্রতিপাদ্য করে রবিবার রংপুর টাউন হলে দিনব্যাপি এই সম্মেলন আয়োজন করে বিভাগীয় লেখক পরিষদ, রংপুর। সংগঠনের নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ আয়োজন করা হয়। এর আগে সকালে সম্মেলন উদ্বোধন করেন প্রবীণ লেখক ও শিক্ষাবিদ মুহম্মদ আলীম উদ্দীন। এরপর সারাদিনে রংপুর বিভাগের আটজেলা ছাড়াও নওগাঁ, নাটোর, পাবনা, বগুড়া ও রাজশাহী থেকে আসা চার শতাধিক লেখক তাদের কবিতা ও ছড়া পাঠ করেন। ১৩ টি পর্বে বিভক্ত সম্মেলনে বিকেলের সমাপনী পর্বে আট জেলা থেকে আটজনকে দেয়া হয় ‘গুণী সাহিত্যিক সম্মাননা’। এ বছর গুণী সাহিত্যিক সম্মাননা পেয়েছেন- একেএম শহীদুর রহমান বিশু, গীতিকার ও ছড়াকার (রংপুর), নাছরিন রুবি, কবি (ঠাকুরগাঁও), অধ্যাপক জলিল আহমেদ, কবি ও শিক্ষাবিদ (দিনাজপুর), রকিবুল হাসান গোলজার, কবি (কুড়িগ্রাম), সুলতান উদ্দিন আহমেদ, কবি ও রম্যলেখক (গাইবান্ধা), আরিফুল ইসলাম পল্লব, কবি ও গবেষক (পঞ্চগড়), ফেরদৌসী বেগম বিউটি, কবি ও সংগঠক (লালমনিরহাট), তামান্না সুলতানা তুলি, কবি ও গদ্যকার (নীলফামারি)। বিশেষ সম্মাননা দেয়া হয় কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হককে। এ বছর সেরা সংগঠকের পুরস্কার পান সিনিয়র সহ-সভাপতি এসএম সাথী বেগম।
সম্মেলনের বিভিন্ন পর্বে সম্মানিত অতিথি ছিলেন লেখক ও শিক্ষাবিদ, প্রফেসর মোজাম্মেল হক, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার আব্দুল আলীম মাহমুদ, বাংলাদেশ বেতার, রংপুরের আঞ্চলিক পরিচালক ড. মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সংগঠক আকবর হোসেন, সাহিত্যিক ও সংগঠক রানা মাসুদ, শিক্ষাবিদ ও মানবাধিকারকর্মী অধ্যক্ষ খন্দকার ফকরুল আনাম বেঞ্জু, প্রবীণ কবি মতিউর রহমান বসনীয়া, অঞ্জলিকা সাহিত্যপত্রের সম্পাদক দিলরুবা শাহাদৎ, কবি ও সাংবাদিক মাহবুবুল ইসলাম রংপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রফিক সরকার, শিক্ষক ও সাংবাদিক আব্দুর রউফ সরকার, বেগম রোকেয়া স্মৃতিকেন্দ্রের উপ-পরিচালক আব্দুল্ল্যাহ আল ফারুক, লেখক ও গবেষক রেজাউল করিম মুকুল, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. তুহিন ওয়াদুদ ও উমর ফারুক, কবি বাদল রহমান, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক আরিফুল হক রুজু, সিটি প্রেসক্লাব, রংপুরের আহ্বায়ক একেএম মঈনুল ইসলাম, কালের কণ্ঠের স্টাফ রিপোর্টার স্বপন চৌধুরী, চ্যানেল আইয়ের রংপুর অফিস প্রধান মেরিনা লাভলী, লেখক ও শিক্ষাবিদ প্রফেসর শাহ্ আলম, সাংবাদিক ও কবি আফতাব হোসেন, দৈনিক যুগান্তরের রংপুর অফিস প্রধান মাহবুব রহমান, বিভাগীয় লেখক পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুহাম্মদ মকবুল হুসাইন সুমন, লেখক ও লোকসাহিত্য গবেষক আনওয়ারুল ইসলাম রাজু, কবি ও কলামিস্ট মুকুল রায়, লেখক ও রোকেয়া গবেষক ড. নাসিমা আকতার, ছড়াকার ও গীতিকার এস.এম খলিল বাবু, ডা. নূরুল হাসান বাবু, আপডেট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, লেখক ও শিশু চিকিৎসক ডা. ফেরদৌস রহমান, লেখক ও সংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ডা. মফিজুল ইসলাম মান্টু, রংপুর সাহিত্য-সংস্কৃতি পরিষদের সভাপতি স্বাত্ত্বিক শাহ্ আল মারুফ ও সাধারণ সম্পাদক জাকিয়া সুলতানা চৈতি এবং লিটলম্যাগ ফোরাম, রংপুরের আহ্বায়ক আসহাদুজ্জামান মিলন প্রমুখ। সম্মেলনে সকালের উদ্বোধনী পর্বে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি এসএম সাথী বেগম এবং বিকেলে সমাপনী পর্বে সভাপতিত্ব করে সংগঠনের প্রাক্তন সভাপতি ও শিক্ষাবিদ ড. এ. আই. এম. মুসা। সকালের পর্বে স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জাকির আহমদ। বিকেলে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুজ্জামান সোহাগ, সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক মজনুর রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক জাকির আহমদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মুস্তাফিজ রহমান এবং কার্যকরী সদস্য সোহানুর রহমান শাহীন। বিভিন্ন ইভেন্টে সহায়তা করেন রংপুর জেলা কমিটির সভাপতি মোশাররফ হোসেন রাজু, সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ কাওসার মামুন, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাহিত্য সম্পাদক শিস খন্দকার, অর্থ সম্পাদক শরিফুল আলম অপু, সমাজকল্যাণ সম্পাদক আদিল ফকির, সহ-গ্রন্থাগার সম্পাদক আহমেদ অরণ্য, সহ-প্রচার সম্পাদক সোমের কৌমুদি, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক জিয়াউল আলম ফারুকী, দপ্তর সম্পাদক সরকার বাবলু, সহ-দপ্তর সম্পাদক ইউসুফ হাসান আরিফ, সহ-মহিলা বিষয়ক মাহবুবা লাভিন, সদস্য কামরুজ্জামান বাদশা, মুবাশ্বির দুহা, এস.এম ইতি, মুহাম্মদ খালিদ সাইফুল্লাহসহ অন্যান্যরা।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *