শৈলকুপার গোবিন্দপুর গ্রামে বরযাত্রীর দাওয়াত না পেয়ে হামলায় ৩জন গ্রেফতার

শৈলকুপার গোবিন্দপুর গ্রামে বরযাত্রীর দাওয়াত না পেয়ে হামলায় ৩জন গ্রেফতার

ঝিনাইদহঃ
বরযাত্রীর দাওয়াত না পেয়ে হামলার ঘটনা ঘটেছে ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামে। এঘটনায় দুই জনকে মারধর করা হয়েছে। ভাংচুর করা হয়েছে ১০টি বাড়ি। শুক্রবার সকালে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে এই ঘটনা ঘটে। আহতের শৈলকুপা হাসপাতে ভর্তি করা হয়েছে। গ্রামবাসি সুত্রে জানা গেছে, সামাজিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপ গোবিন্দপুর গ্রামের ইউপি সদস্য মোনায়েম ও কিবরিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। শুক্রবার কিবরিয়ার বিয়ের বরযাত্রী যাওয়ার দাওয়াত না পেয়ে মোনায়েমের লোকজন কিবরিয়ার কর্মী-সমর্থকের উপর হামলা চালায়। পরে বরযাত্রী যাওয়া বাদ রেখে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় তৈরি অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু করে। এসময় ওই গ্রামের তোতা ও সোনিয়া আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। আওয়ামীলীগ সমর্থক কিবরিয়া জানায়, শুক্রবার তার বিয়ের দাওয়াত না পেয়ে প্রতিপক্ষরা হামলা চালায়। এ সময় মেহের মন্ডল, নজির মন্ডল, সবুর মন্ডল, গোলাম রব্বানীর বাড়ীসহ ১০টি বাড়িঘর ভাংচুর করে। শৈলকুপা থানার (ওসি) কাজী আয়ুবুর রহমান জানান, আওয়ামীলীগের দুইটি গ্রুপ সামাজিক আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে গোবিন্দপুর গ্রামে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় বেশ কয়েকটি বাড়ীঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় শৈলকুপা থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ ৩ জনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *