সব ভূমি অফিসগুলোকে সিসিটিভি’র আওতায় আনার ঘোষণা দিলেন ভূমিমন্ত্রী

সব ভূমি অফিসগুলোকে সিসিটিভি’র আওতায় আনার ঘোষণা দিলেন ভূমিমন্ত্রী

সারাদেশের ভূমি অফিসগুলোকে সিসিটিভির আওতায় আনা হবে জানিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। মন্ত্রী বলেন, ‘মন্ত্রণালয়ে আমাদের দক্ষতা অনেক বেড়েছে, স্বচ্ছতাও অনেক বেড়েছে। মন্ত্রণালয় থেকে যে দুর্নাম সেটি অনেকাংশে কমে এসেছে। ফিল্ড লেভেলে দুর্নীতি রোধ করা এখন আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ। ফিল্ড লেভেলে আমরা হাত দিচ্ছি, ফিল্ড লেভেলের দুর্নীতি বন্ধ করতে সারাদেশের ভূমি অফিসগুলোকে সিসি টিভির আওতায় নিয়ে আসবো।’

শনিবার (১২ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় উপলক্ষে এই সভার আয়োজন করা হয়।

ভূমিমন্ত্রী বলেন, ‘কে আসলো, কে গেলো এটির জন্য সিসিটিভি বসাবো না। এর মাধ্যমে আসলে জবাবদিহিতা বাড়বে। একটি অ্যাপসের মাধ্যমে সারাদেশের ভূমি অফিসগুলোক আমরা মনিটর করবো। এটির একসেস সবার কাছে থাকবে না, আমি, সচিব এদের কাছেই এই অ্যাপসের একসেস থাকবে।’

তিনি বলেন, ‘যখন আমরা কোনও প্রতিষ্ঠানকে সিসিটিভি’র আওতায় নিয়ে আসি, তখন ওই প্রতিষ্ঠানের উৎপাদনশীলতা বেড়ে যায়। তখন অটোমেটিক্যালি সচেতনতা তৈরি হয়ে যায়। তাই যখন ইউনিয়ন পর্যায় থেকে শুরু করে সারাদেশের ভূমি অফিসগুলো সিসিটিভি’র আওতায় চলে আসবে তখন উল্টাপাল্টা কিছু করা সুযোগ থাকবে না। সিসিটিভি’র পাশাপাশি যেন ভয়েস রেকর্ডিং থাকে আমি সেই ব্যবস্থাও করবো।’

ভূমিমন্ত্রী বলেন, ‘কেন আমাকে এই মন্ত্রণালয়ে আবার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তা একটা ম্যাসেজ। যাদের এখনও সমস্যা আছে, যারা এখনও মনে করছেন উনি হয়তো পারবেন না। তাদের আমি বলতে চাই, এখনও সময় আছে কেটে পড়েন। কারণ আমি কোনও ছাড় দেব না। আমরা কোনও চাওয়া পাওয়া নেই। আমি এখানে এসেছি সম্মানিত হতে, অসম্মান হয়ে ফিরে যেতে নয়। ব্যর্থতার কোনও দায়ভার নিয়ে আমি যেতে চাই না, কোনওভাবেই না।’

জনগণের কাছে দায়বদ্ধতার প্রসঙ্গ তুলে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের জবাবদিহিতা আছে। সেটি অবশ্যই জনগণের কাছে। একেবারে নিচ থেকে উচ্চ পর্যায়ের যে কারও প্রশ্নের উত্তর দিতে আমি বাধ্য থাকবো। আমার কর্মক্ষেত্রে সবার কাছে কৈফিয়ত দিতে বাধ্য। দল, মত, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে আমি সবার। সবার জন্য আমার দরজা খোলা থাকবে। সবার সেবক হিসেবে থাকতে চাই।’

মতবিনিময় সভায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি কলিম সরওয়ার, সাবেক সভাপতি আলী আব্বাস, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামল, প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, সিইউজের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *