হরিপুরে স্ত্রী’র সাথে অভিমান করে স্বামীর আত্মহত্যা

হরিপুরে স্ত্রী'র সাথে অভিমান করে স্বামীর আত্মহত্যা

জে.ইতি হরিপুর (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ
ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে স্বামীর ভাত খাবেনা বউ, অভিমানে আত্মহত্যা করেছে স্বামী বলে খবর পাওয়া গেছে।
স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, হরিপুর উপজেলার ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়নের কয়েস আলীর ছেলে দুলাল (২২) নামে যুবকের সঙ্গে একই উপজেলার জামুন মাসালডাঙ্গী গ্রামের আঃ সাত্তরের সঙ্গে বিয়ে হয় দুলালর গত বছর।
কিছু দিন পর শুরু হয় পারিবাহিক কোলাহল স্বামী দুলালর বাড়ি ছেড়ে স্ত্রী চলে যায় বাবা আঃ সাত্তরের বাড়িতে। র্দীঘদিন অপেক্ষায় থাকার পর স্বামী দুলাল শশুর বাড়িতে গেলে স্ত্রী সমেজা খাতুন স্বামী দুলালর সঙ্গে সংসার করবেনা বলে জানালে দুলাল চলে আসে। এরপর শশুর আঃ সাত্তর বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিকে অবগত করে। আপোষে না আসায় নিকটতম থানায় অভিযোগ দায়ের করে। গত ১৩/৪/১৯ ইং তারিখের সোমবার থানায় ডাকা হয়।
আপোষ মীমাংসার জন্য চেষ্টা চলে, কিন্ত দুলাল তার স্ত্রী সমেজা খাতুনকে তালাক দিতে অস্বীকৃতি জানায়। স্ত্রী সমেজা খাতুন কোন মতে দুলালর ভাত ও সংসার করবেনা বলে সাব জানিয়ে দেয়।
একপর্যায় উভয় পরিবারের লোকজন গোপন সমস্যার কথা জানার পর সমঝোতায় আসে।
এদিগে স্বামী দুলাল গত ১৩/৪/১৯ ই তারিখের সোমবার অনুমানিক বেলা ৩ টার সময় নিজ শুয়ার ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।
পরিবারের লোকজন দরজা খুলে দেখে দুলাল গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। গলার ফাঁস কাটে উদ্ধার করে হরিপুর হাসপাতালে নিয়ে আসে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত্য বলে ঘোসনা করেন।
এবিষয়ে হরিপুর থানা অফিসার ইনর্চাজ আমিরুজ্জামান বলেন, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তি অনেকবার চেষ্টা করে যেনো তাদের সংসার টিকে। কিন্ত দুলালর কোনো একটা বড় সমস্যার রয়েছে জানা গেছে। স্ত্রী সমেজা খাতুন তার সঙ্গে সংসার করবেনা। এবিষয়ে দুই পরিবারের মাঝে আপোষ হয়েছে। কেনো স্ত্রী সমেজা খাতুন সংসার করবেনা এমন অভিমানে দুলাল গালায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *