ডাকসু নির্বাচন বর্জন করলো ৪ জোট

ডাকসু নির্বাচন বর্জন করলো ৪ জোট

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে ৪টি জোট।

সোমবার (১১ মার্চ) দুপুর ১ মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে তারা এই নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে। একইসঙ্গে তারা আগামীকাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস বর্জনের ডাক দিয়েছে।

ওই ৪টি জোট হচ্ছে- বাম সংগঠনগুলোর জোট প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্য, কোটা আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, স্বাধিকার স্বতন্ত্র পরিষদ ও স্বতন্ত্র জোট।

এর আগে হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলে ভোট কেন্দ্র পরিদর্শনে গেলে প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্যের প্রার্থী-কর্মীদের ধাওয়া দেওয়া হয় বলে অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় ছাত্রলীগকে অভিযুক্ত করছেন ঐক্যের নেতারা।

এছাড়া বেগম রোকেয়া হল ভোটকেন্দ্র থেকে তিনটি ব্যালটবাক্স সরিয়ে ফেলার অভিযোগ উঠায় সেখানে গিয়ে এ ঘটনার প্রতিবাদ জানান ডাকসু নির্বাচনে কোটা সংস্কার আন্দোলনের প্লাটফর্ম সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ভিপি প্রার্থী নুরুল হক নূর।

এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তার ওপর হামলা চালায়। এ সময় আরও দুই প্রার্থী আহত হন। অন্য আহতরা হলেন- স্বতন্ত্র জোটের প্রার্থী অরণী ও শ্রবণা শফিক দীপ্তি। মারধরে আহত হয়ে পড়া নূরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

পরে শিক্ষার্থীরা হলের তালাবদ্ধ একটি রুম থেকে তিনটি ব্যালট বাক্স উদ্ধার করে। ওই বক্সগুলোতে ব্যালট পেপার পাওয়া গেছে। ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ব্যালট বাক্স তিনটি ভেঙে ফেলেছে। এ ঘটনায় বেলা ১২ টার দিকে রোকেয়া হলের ভোট স্থগিত করা হয়।

এর আগে ভোট শুরু আগেই বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হলে ছাত্রলীগ প্যানেলের প্রার্থীদের পক্ষে সিল মারা এক বস্তা ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে মুখে হলের প্রাধ্যক্ষ শবনম জাহানকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

এছাড়া কৃত্রিম লাইন সৃষ্টি করে ছাত্রলীগ সাধারণ শিক্ষার্থীদের ভোট প্রদানে বাধা দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Loading Facebook Comments ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *